লিপস্টিক লাগানোর সময় এই নিয়ম গুলি মেনে চলুন

Use Lipstick

মেকাপের শেষ তুলির টান হল লিপস্টিক। মেকআপ সম্পূর্ণ করতে এবং সঠিক সুন্দর আকারের মুখমণ্ডল তৈরি করতে লিপস্টিকের ব্যবহার অত্যন্ত জরুরী। ঠোঁটকে বাদ দিয়ে কথা ভাবাই যায় না। ঠোঁট বিভিন্ন ধরনের হয়ে থাকে, তাই ঠোঁটের ধরন অনুযায়ী মেকআপ করতে হয়। তাহলে চলুন দেখে নেওয়া যাক কিভাবে এই ঠোঁটের মেকআপ করা যায়।

১. লিপস্টিক লাগানোর নিয়ম

লিপস্টিক লাগাবার আগে ঠোঁট ভালো করে পরিষ্কার করে নিন। মুখে যে ফাউন্ডেশন ব্যবহার করছেন তা দিয়ে ঠোঁট ভরে দিন। এবার লিপ্লাইনার দিয়ে ঠোঁটের উপর রেখা টেনে আউট লাইন করে নিন। তারপর ধীরে ধীরে ব্রাশ দিয়ে লিপস্টিক লাগান। যাদের ঠোঁট মোটা তারা ঠোটের যে মূল লাইন সেই লাইন থেকে একটু ভিতরের দিকে আউট লাইন করুন। মোটা ঠোঁটের ক্ষেত্রে হাল্কা রঙের লিপস্টিক ব্যবহার করা উচিৎ তাহলে ঠোঁট ছোট দেখাবে। যাদের ছোট ঠোঁট তারা হাল্কা রঙের লিপস্টিক ব্যবহার করবেন, ঠোঁটের মূল লাইনের বাইরের দিকে লাইন টানবেন। সবসময় হাল্কা রঙের লিপস্টিক ব্যবহার করুন দিনের বেলায় ও রাত্রে গাঁড় রঙের লিপস্টিক ব্যবহার করুন। যাদের রং কালো তাদের হাল্কা রঙের লিপস্টিক ব্যবহার করা ভালো।

২. ঠোঁটকে উজ্জ্বল করতে

লিপস্টিক লাগানোর পরে ঠোঁটকে আরো উজ্জ্বল ও চকচকে করে তোলার জন্য লিপগ্লস লাগান। লিপস্টিক লাগানোর পর যদি অতিরিক্ত মনে হয় তাহলে টিস্যু পেপার দিয়ে বাড়তি লিপস্টিক মুছে ফেলুন।

৩. সতর্কতা

মনে রাখবেন লিপস্টিক লাগানোর ফলে ঠোঁট শুধু সুন্দরই হয় না, অতিরিক্ত লাগানোর ফলে এবং লিপস্টিক ঠোঁট থেকে না তোলার ফলে ঠোঁটের ক্ষতি হয়। তাই বাইরে থেকে আসার পর লিপস্টিক তুলে ফেলুন ও তারপর গোলাপজল ও গ্লিসারিন মিশিয়ে লাগিয়ে নিলে ঠোঁটের শুকনো ভাব চলে যাবে। সবসময় দামি কোম্পানির লিপস্টিক ব্যবহার করবেন। সকলেই বাড়ি ফিরে যত দেরি হোক না কেন মেকআপ তুলতে ভুলবেন না। মেকআপ যেমন আমাদের সুন্দর করে তুলে, তেমনি বেশিক্ষণ রাখলে ত্বকের ক্ষতি করে। প্রয়োজন ছাড়া মেকআপ এড়িয়ে চলুন।

এই পেজ টি SHARE করুন:

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *